শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ১০:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
শিরোনাম:
উপজেলা বাসীকে পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম শালু নড়াইলে মাছের ঘেরে গোসল করতে গিয়ে কিশোরের মৃত্যু ডুমুরিয়ায় ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ  নড়াইলে সড়ক দূর্ঘটনায় যুবক নিহত সাতক্ষীরা-য় কৃষক দলের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত  শ্রীপুরের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে গরুসহ গোয়াল পুড়ে ছাই  দেশ বাসীকে পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন  সংসদ সদস্য এ্যাড. বিপ্লব হাসান ফুলবাড়ীতে স্বপ্নসিঁড়ি সমাজ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে বিশ্ব রক্তদাতা দিবস পালিত নড়াইলে দুস্থ ও অসহায় পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ মোংলায় ইউথ এ্যাম্বাসেডর এর মিটিং অনুষ্ঠিত শ্রীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান রাজনকে বিজয়ী সংবর্ধনা যশোরে অটোরিকশায় সন্তান প্রসব মণিরামপুরে ৫ম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের স্বীকার হয়ে ৫ মাসের অন্তঃসত্তা- আটক ২ শপথ নিলেন শ্যামল সজীব শাবানা মোস্তফা ফিলান্সিং ইনস্টিটিউটে ওসি সুমন তালুকদারের মতবিনিময় হাসপাতালে স্বেচ্ছায় রক্তদাতাদের হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন ডুমুরিয়ায় ইউপি সদস্যকে মারপিট করে  ভিজিএফ-এর কার্ড  সহ টাকা ও চেন কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ সবুজ পৃথিবী উদ্যোগে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টিউবওয়েল স্থাপন বঙ্গবন্ধু গোলকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ফাইনাল খেলায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ ভালুকায় ভূমিসেবা বিষয়ক জনসচেতনতামূলক সভা ডুমুরিয়ায় কলেজ শিক্ষকের বাসা থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার মনিরামপুরে অনলাইন জুয়াখেলায় ব্যবহৃত ৪টি মোবাইল ফোনসহ ৪ জুয়াড়ি আটক সমাজসেবায় সায়েদ আলীর সম্মাননা অর্জন শার্শায় ফেনসিডিলসহ আটক-১ নড়াইলে পুলিশ সদস্যের লিঙ্গ কাটল কে শার্শায় ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারকে জ শ্রীপুর উপজেলার নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান রাজন সহ ৩ সদস্যদের দায়িত্ব গ্রহণ  মণিরামপুরে ১২৮ টি ভুমিহীন পরিবারের হাতে তুলে দিলেন আশ্রয়ণ প্রকল্প(০২) এর ঘর খুলনায় সপ্তাহব্যাপী কোরবানির পশুর হাট উদ্বোধন শ্রীপুরে তিন দিনব্যাপী কৃষি মেলার শুভ উদ্বোধন

যশোরে ভয়াবহ লোডশেডিং ও গনবিরোধী বাজেটের প্রতিবাদে সমাবেশ অনুষ্ঠিত 

উপজেলা / জেলা-প্রতিনিধি / ১৯ বার পড়া হয়েছে
সময় শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ১০:১৭ অপরাহ্ন

মোঃ ওয়াজেদ আলী,স্টাফ রিপোর্টার:

ভয়াবহ লোডশেডিং ও গনবিরোধী বাজেটের প্রতিবাদে বাংলাদেশের বিপ্লবী কমিউনিস্ট লীগ যশোর জেলা কমিটি প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার ( ১০ই জুন) বিকাল সাড়ে চারটায় দড়া টানা ভৈরব চত্বরে এ প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। জেলা সম্পাদক কমঃ তসলিম উর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের বিপ্লবী কমিউনিস্ট লীগ কেন্দ্রীয় সাধারন সম্পাদক কমঃ ইকবাল কবির জাহিদ, জেলা সম্পাদক মন্ডলির সদস্য কমঃ জিল্লুর রহমান ভিটু, জাতীয় কৃষক খেত মজুর সমিতির কেন্দ্রীয় সদস্য মিজানুর রহমান, নারী মুক্তি পরিষদের জেলা আহ্বায়ক সখিনা বেগম দ্বিপ্তী, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন বাংলাদেশের জেলা যুগ্মআহ্বায়ক নুর আলম, যুব নেতা মঞ্জুরুল আলম, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রী জেলা সাধারন সম্পাদক রায়হান বিশ্বাস প্রমূখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কমঃ ইকবাল কবির জাহিদ বলেন,আজ ফ্যাসিস্ট সরকার জনগণের গনতান্ত্রিক সকল অধিকারকে হরন করে উন্নয়নের নামে লুন্ঠনের রাম রাজত্ব কায়েম করেছে। এগারো লক্ষ কোটি টাকা ইতিমধ্যে বিদেশে পাচার করেছে। এ সমস্ত পাচারকৃত টাকা ফেরত আনতে হবে আর পাচারকারীদের বিচারের আওতায় আনতে হবে।  তিনি আরও বলেন, সংসদে পেশকৃত বাজেট প্রতিক্রিয়ায় বলেন, জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী ২০২৩-২৪ সালের যে বাজেট পেশ করেছেন তা গতানুগতিক ধনিক তোষণের। কালোটাকা উদ্ধার, টাকা পাচার রোধ ও দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে কোন পরিকল্পনা নেই। ৭,৬১,৭৮৫কোটি টাকার বাজেটে উন্নয়ন খাতে ২,৬১,৭৮৫ কোটি টাকা, যার সবটাই ঋণ নির্ভর। এই খাত সরকারের লুটপাটের বড় ক্ষেত্র। আর রাজস্ব খাতে যে ৫ লক্ষ কোটি টাকা আয় ধরা হয়েছে তার সবটাই ব্যয় হবে বেতন ভাতা বাবদ। শিক্ষা, চিকিৎসা খাতে বরাদ্দ বাড়েনি। মূল্যস্ফীতি ধরলে বরং বরাদ্দ কমেছে। বাজেটে ৬.৫% এর উপর মূল্যস্ফীতির কথা বলা হলেও তা নিয়ন্ত্রণের কোন দিকনির্দেশনা নেই। এতে করে গরীব নিম্ন আয়ের মানুষ আরও উচ্চ দ্রব্যমূল্যের কষাঘাতে জর্জরিত হবে। নানাভাবে নিম্ন আয়ের মানুষের উপর নতুনভাবে করারোপের প্রস্তাব করা হয়েছে। যা অপরাধের পর্যায়ে পড়ে। রাজস্ব আয় কোন ভাবেই ৫ লক্ষ কোটি টাকা সংগ্রহ করা সম্ভব নয়। আর উন্নয়ন খাতে ব্যাংক ও বিদেশি ঋণ যেমন আমাদের ব্যাংক খাতকে ডোবাবে, তেমনি বিদেশি ঋণের জালে আবদ্ধ হয়ে দেশ দেউলিয়া হবে। সামগ্রিকভাবে কৃষি উৎপাদন ব্যবস্থায় কোন দিকনির্দেশনা নেই, নেই মৌলিক শিল্প খাতেও। এক কথায় বলা যায় এটা সরকারের আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে কল্পনাবিলাসী অবাস্তব বাজেট। এ বাজেট জাতীয় অর্থনীতিকে ধ্বংস করবে আর জনগণের জীবনকে করবে আরও দূর্বিষহ।

তিনি গণবিরোধী এই বাজেটের বিরুদ্ধে জনগণের প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানান তিনি আরো বলেন এ সরকারের অধিনে কোন নির্বাচন সুষ্ঠ হবেনা।  অবশ্যয় তদারকি সরকারের অধিনে নির্বাচন দিতে হবে।  আজ বিকাল চারটা তিরিশ মিনিটে ভয়াভয়ো লোড সেডিং ও গনবিরোধী বাজেট পেশের প্রতিবাদে বাংলাদেশের বিপ্লবী কমিউনিস্ট লীগ যশোর জেলা কমিটির আহবানে দড়াটানা ভৈরব চত্বরে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জেলা সম্পাদক কমঃ তসলিম উর রহমান। বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের বিপ্লবী কমিউনিস্ট লীগ কেন্দ্রীয় সাধারন সম্পাদক কমঃ ইকবাল কবির জাহিদ, জেলা সম্পাদক মন্ডলির সদস্য কমঃ জিল্লুর রহমান ভিটু, জাতীয় কৃষক খেত মজুর সমিতি কেন্দ্রীয় সদস্য মিজানুর রহমান, নারী মুক্তি পরিষদ এর জেলা আহবায়ক সখিনা বেগম দ্বীপ্তী, জাতীয় শ্রমীক ফেডারেশন বাংলাদেশ এর জেলা যুগ্ন আহবায়ক নুর আলম, যুব নেতা মন্জুরুল আলম, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রী জেলা সাধারন সম্পাদক রায়হান বিশ্বাস প্রমূখ। সভা পরিচালনা করেন আহাদ আলি মুন্না।

সমাবেশে ইকবাল কবির জাহিদ বলেন আজ ফ্যাসিস্ট সরকার জনগনের গনতান্ত্রীক সকল অধিকারকে হরন করে উন্নয়নের নামে লুন্ঠনের রাম রাজত্য কায়েম করেছে। এগারো লক্ষ টাকা ইতি মধ্যে বিদেশে পাচার করেছে। এ সমস্ত পাচার কৃত টাকা ফেরত আনতে হবে আর পাচার কারীদের বিচারের আওতায় আনতে হবে। বাংলাদেশের বিপ্লবী কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক কমরেড ইকবাল কবির জাহিদ জাতীয় সংসদে পেশকৃত বাজেট প্রতিক্রিয়ায় বলেন, জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী ২০২৩-২৪ সালের যে বাজেট পেশ করেছেন তা গতানুগতিক ধনিক তোষণের। কালোটাকা উদ্ধার, টাকা পাচার রোধ ও দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে কোন পরিকল্পনা নেই। ৭,৬১,৭৮৫কোটি টাকার বাজেটে উন্নয়ন খাতে ২,৬১,৭৮৫ কোটি টাকা, যার সবটাই ঋণ নির্ভর। এই খাত সরকারের লুটপাটের বড় ক্ষেত্র। আর রাজস্ব খাতে যে ৫ লক্ষ কোটি টাকা আয় ধরা হয়েছে তার সবটাই ব্যয় হবে বেতন ভাতা বাবদ। শিক্ষা, চিকিৎসা খাতে বরাদ্দ বাড়েনি। মূল্যস্ফীতি ধরলে বরং বরাদ্দ কমেছে। বাজেটে ৬.৫% এর উপর মূল্যস্ফীতির কথা বলা হলেও তা নিয়ন্ত্রণের কোন দিকনির্দেশনা নেই। এতে করে গরীব নিম্ন আয়ের মানুষ আরো উচ্চ দ্রব্যমূল্যের কষাঘাতে জর্জরিত হবে। নানাভাবে নিম্ন আয়ের মানুষের উপর নতুনভাবে করারোপের প্রস্তাব করা হয়েছে। যা অপরাধের পর্যায়ে পরে। রাজস্ব আয় কোন ভাবেই ৫ লক্ষ কোটি টাকা সংগ্রহ করা সম্ভব নয়। আর উন্নয়ন খাতে ব্যাংক ও বিদেশি ঋণ যেমন আমাদের ব্যাংক খাতকে ডোবাবে, তেমনি বিদেশি ঋণের জালে আবদ্ধ হয়ে দেশ দেউলিয়া হবে। সামগ্রিকভাবে কৃষি উৎপাদন ব্যবস্থায় কোন দিকনির্দেশনা নেই, নেই মৌলিক শিল্প খাতেও। এক কথায় বলা যায় এটা সরকারের আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে কল্পনাবিলাসী অবাস্তব বাজেট। এ বাজেট জাতীয় অর্থনীতিকে ধ্বংস করবে আর জনগণের জীবনকে করবে আরো দূর্বিষহ।

তিনি গণবিরোধী এই বাজেটের বিরুদ্ধে জনগণের প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানান তিনি আরো বলেন এ সরকারের অধিনে কোন নির্বাচন সুষ্ঠ হবেনা। অবশ্যয় তদারকি সরকারের অধিনে নির্বাচন দিতে হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

একাধিক নিউজ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error: Content is protected !!